শিরোনাম :

আইপিএলে ভারতের জার্সি গায়ে আবার দেখা যাবে ধোনিকে

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৩ ১৮:৩৬:০৯ || আপডেট: ২০২০-০৫-০২ ০৭:৩৭:৩৯

ভারতের জার্সিতে আবারও কি দেখা যাবে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে? প্রশ্নের জবাব হয়তো পাওয়া যেত আইপিএলে। তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে আইপিএলের মতো ধোনির ভাগ্যের আকাশও আপাতত মেঘাচ্ছন্ন। ধোনির সাবেক সতীর্থ গৌতম গম্ভীর বলছেন, আইপিএল না হলে ধোনির জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। তার মতে, সংক্ষিপ্ত সংস্করণে ধোনির বিকল্প হতে পারেন লোকেশ রাহুল।

৩৮ বছর বয়সী ধোনি ২০১৯ বিশ্বকাপ সেমি-ফাইনালের পর কোনো ধরনের ক্রিকেটেই আর মাঠে নামেননি। এই সময়টায় তার অবসর নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটে চলেছে অনেক জল্পনা।

এই মাসেই আইপিএল দিয়ে মাঠে ফেরার সম্ভাবনা ছিল তার। ভারতের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রীও বলেছিলেন, আসছে অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে তার জায়গা পাওয়া নির্ভর করছে আইপিএলের পারফরম্যান্সের ওপর।

তবে করোনাভাইরাসের কারণে আইপিএল গেছে পিছিয়ে। টুর্নামেন্ট এই বছর মাঠে গড়াবে কি না, তার নিশ্চয়তা নেই। স্টার স্পোর্টসের এক অনুষ্ঠানে গম্ভীর সরাসরিই বললেন, আইপিএল না হলে ধোনিকে দলে নেওয়ার সুযোগ দেখছেন না তিনি।

“এই বছর যদি আইপিএল না হয়, তাহলে ধোনির পক্ষে জাতীয় দলে ফেরা খুব কঠিন হয়ে যাবে। গত এক-দেড় বছরে সে মাঠে নামেনি, তাকে কিসের ভিত্তিতে দলে নির্বাচন করা হবে?”

ধোনির অনুপস্থিতিতে প্রথমে রিশাব পান্ত ও পরে রাহুলকে সাদা বলের ক্রিকেটে উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলিয়েছে ভারত। যেখানে পান্তের চেয়ে রাহুলের পারফরম্যান্স ছিল উজ্জ্বল। গম্ভীর মনে করেন, সীমিত পরিসরের ক্রিকেটে, বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে কিপিং করা উচিত রাহুলের।

“ধোনির সম্ভাব্য বিকল্প হতে পারে লোকেশ রাহুল। সাদা বলের ক্রিকেটে যেদিন থেকে সে কিপিংয়ের দায়িত্ব সামলেছে, আমি তার ব্যাটিং ও কিপিং, দুটোর পারফরম্যান্সই দেখেছি। তার কিপিং অবশ্যই ধোনির মতো ভালো নয়। তবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের কথা ভাবলে সে কার্যকর ক্রিকেটার, কিপিংয়ের পাশাপাশি তিন কিংবা চার নম্বরে ব্যাট করতে পারে।

ট্যাগ :

খেলাধুলা